Connect with us

Tech News

মহাবিশ্বে সৃষ্ট প্রথম নক্ষত্র থেকে নিঃসৃত আলোর উপস্থিতির প্রমাণ লাভ

Published

on

মহাবিশ্বে সৃষ্ট প্রথম নক্ষত্র থেকে নিঃসৃত আলোর উপস্থিতির প্রমাণ লাভ

মহাবিশ্বে সৃষ্ট প্রথম নক্ষত্র থেকে নিঃসৃত আলোর উপস্থিতির প্রমাণ লাভ

কোনো ধারাবাহিক প্রক্রিয়ার পরিবর্তে ভৌত বিশ্বতত্ত্ব অনুযায়ী এই মহাবিশ্বের উৎপত্তি হয়েছিল একটি বিশেষ মুহূর্তে। মহা বিস্ফোরণের মাধ্যমে সুপ্রাচীন বিন্দু থেকে মহাবিশ্ব তৈরির এই প্রক্রিয়াকেই সাধারণত ‘বিগ ব্যাং’ বলা হয়ে থাকে। ধারণা করা হয়, আজ থেকে প্রায় ১৩৭৫ কোটি বছর আগে প্রাচীনতম একটি বিন্দুর অতি শক্তিশালী বিস্ফোরণের মাধ্যমেই মহাবিশ্বের সৃষ্টি হয়েছিল। ঐ সময়ে এই মহাবিশ্ব একটি অতি ঘন এবং উত্তপ্ত অবস্থায় ছিল। আর মহাবিশ্ব সৃষ্টির প্রথম ১৮ কোটি বছর ধরে পুরো মহাবিশ্ব নিকষ অন্ধকারে ঢাকা ছিল। এই কারণে এই সময়টা ‘ডার্ক এজ’ বা ‘অন্ধকার যুগ’ হিসেবে পরিচিত।

এবার যুক্তরাষ্ট্রের অ্যারিজোনা স্টেট ইউনিভার্সিটির একদল জ্যোতির্বিজ্ঞানী বলেছেন তারা মহাবিশ্বের প্রথম আলোর উৎসর সন্ধান পেয়েছেন। জ্যোতির্বিজ্ঞানী জুড বাউমেন বলেন, মহাবিশ্বে সৃষ্ট প্রথম নক্ষত্র থেকে নিঃসৃত আলোর উপস্থিতির প্রমাণ পেয়েছেন তারা। গবেষণার উদ্ধৃতি দিয়ে ‘ন্যাচার’ জার্নালে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মহাবিশ্বের প্রথম দিকের কিছু হাইড্রোজেন কণায় প্রাপ্ত বিকিরণ থেকে আলোর উৎসর এই ‘ফিঙ্গার প্রিন্ট’ খুঁজে পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা। তবে প্রথম নক্ষত্র ঠিক কতদিন আগে তৈরি হয়েছিল সে বিষয়ে কোনো ধারণা দিতে না পারলেও মহাবিশ্বের প্রথম আলোর উৎসর সন্ধান পাওয়ার ঘটনায় দারুণ উচ্ছ্বসিত গবেষকরা।

এই আলোর উৎসর সন্ধানের মধ্য দিয়েই মূলত ‘বেবি স্টার’ বা নক্ষত্রের জন্মরহস্য উদঘাটনে আরো একধাপ এগিয়ে গেল বিজ্ঞানীরা। অস্ট্রেলিয়ার কমনওয়েলথ সাইন্টিফিক এন্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিসার্চ অরগানাইজেশনের (সিএসআইআরও) জ্যোতির্বিজ্ঞানী কেইথ ব্যানিস্টার বলেন, বেবি স্টার জন্মের রহস্য উদঘাটন করতে পারাটা সত্যিই খুব রোমাঞ্চকর বিষয়। তবে আমরা যেহেতু সত্যি সত্যি সেই সময়কার নক্ষত্রের জন্ম দেখতে পারব না তাই আমাদের সেই সময়ের গ্যাসের ওপর আলোর যে প্রভাব হয়েছিল তার ওপরই নির্ভর করতে হবে।

সিএসআইআরও পরিচালিত পশ্চিম অস্ট্রেলিয়ার দ্য মারচিশন রেডিও অ্যাস্ট্রোনোমি অবজারভেটরির রেডিও টেলিস্কোপের এক দীর্ঘ গবেষণা থেকে এই তথ্য পেয়েছেন গবেষকরা। জুড বাউমেন এবং তার দল নক্ষত্র থেকে প্রথম আলোর উৎসর সংকেত পেতে দীর্ঘ ১২ বছর ধরে গবেষণা করেছেন। যে এলাকায় বসে এই গবেষণা করা হয়েছে সেটি পুরোপুরি ‘তরঙ্গ মুক্ত’ রাখা হয়েছিল। কেইথ ব্যানিস্টার বলেন, বউমেনের দল যে তথ্য উদঘাটন করেছে তা প্রমাণ করতে হয়ত সময় লাগবে। তবে এই রহস্য উদঘাটনের ক্ষেত্রে তা যুগান্তকারী এক দিশা দিয়েছে। মহাবিশ্ব সৃষ্টির দীর্ঘ যাত্রার রহস্য উদঘাটনে এটি অন্য রকম এক সূত্র। এটি নিয়ে আরো অনেক কিছু করার রয়েছে।

মহাবিস্ফোরণের পরমুহূর্তে হাইড্রোজেন, হিলিয়াম এবং লিথিয়ামের মতো মৌল তৈরি হলেও কার্বন, নাইট্রোজেন, অক্সিজেন এবং লৌহ তৈরি হয়নি। আরো অনেক পরে কোনো না কোনো নাক্ষত্রিক বিস্ফোরণ বা সুপারনোভা থেকে তৈরি হয় নক্ষত্র। ধারণা করা হয়, মহাবিশ্ব সৃষ্টির ১৮ কোটি বছর থেকে ৭৫ কোটি বছরের মধ্যে তৈরি হয়েছিল এসব নক্ষত্র। আর এই নক্ষত্র থেকেই মহাবিশ্বে নি:সৃত হয়েছিল প্রথম আলোক রশ্মি।

মহাবিশ্ব সৃষ্টির পর এটি ছিল জ্বলন্ত এক নিউক্লিয় চুল্লি। তাপমাত্রা ছিল একশ কোটি ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডের চেয়েও বেশি। চারদিক পূর্ণ ছিল কেবল প্লাজমার ধোঁয়াশায়। প্রথমে কোয়ার্ক, ইলেকট্রন, প্রোটন ও নিউট্রনের মতো মৌলিক কণিকাগুলো তৈরি হয়। পরে প্রোটন আর নিউট্রন মিলে তৈরি হয় নিউক্লিয়াস, এরপরে যথাক্রমে হাইড্রোজেন, হিলিয়াম, লিথিয়ামের জন্ম। তবে মহাবিশ্বের উদ্ভবের প্রায় কয়েক লাখ বছর পর্যন্ত আমরা যাকে জড়পদার্থ বা ম্যাটার বলি সে রকম কিছুই তৈরি হয় নি।

প্রায় চার লাখ বছর পরে তাপমাত্রা খানিকটা কমে তিন হাজার ডিগ্রি কেলভিনে নেমে আসার পরই কেবল প্লাজমা থেকে স্থায়ী অণু গঠিত হওয়ার মতো পরিবেশ তৈরি হতে পেরেছে। এসময় মহাবিশ্বের কুয়াশার চাদর ধীরে ধীরে সরে গিয়ে ক্রমশ স্বচ্ছ হয়ে আসে, পথ তৈরি হয় ফোটন কণা চলাচলের। আর তার পরই কেবল তেজস্ক্রিয় রশ্মিসমূহের ওপর জড়-পদার্থের আধিপত্য শুরু হয়েছে। এরপর আরও প্রায় একশ কোটি বছর লেগেছে গ্যালাক্সি জাতীয় কিছু তৈরি হতে। আর আমাদের যে গ্যালাক্সি, যাকে আমরা আকাশগঙ্গা নামে ডাকি, সেখানে সূর্যের সৃষ্টি হয়েছে আজ থেকে প্রায় পাঁচশ কোটি বছর আগে। আর সূর্যের চারপাশে ঘূর্ণায়মান গ্যাসের চাকতি থেকে প্রায় ৪৫০-৪৬০ কোটি বছরের মধ্যে তৈরি হয়েছিল পৃথিবীসহ অন্যান্য গ্রহ-উপগ্রহগুলো।-সিএনএন

Continue Reading
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Tech News

এখন পর্নোগ্রাফিও আপলোড করা যাবে এক্স হ্যান্ডেলে

Published

on

xxx

টেক এক্সপ্রেস ডেস্ক:
এলন মাস্কের সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম এক্স তার কনটেন্ট পলিসি বদলাচ্ছে। ইতিমধ্যেই ঘোষণা করা হয়েছে এবার থেকে পর্নসহ অ্যাডাল্ট কনটেন্টে কোনো বিধিনিষেধ থাকবে না এক্স হ্যান্ডলে।

সাম্প্রতিক আপডেটে সান ফ্রান্সিসকোভিত্তিক প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে বলা হয়, পারস্পরিক সম্মতিতে হওয়া যৌনতা ও প্রাপ্তবয়স্কদের কনটেন্ট তৈরি, বিতরণ ও ব্যবহার করা যাবে। যৌন অভিব্যক্তি ভিজ্যুয়াল বা লিখিত হতে পারে। যদিও ব্যবহারকারীদের সব ধরনের অ্যাডাল্ট কনটেন্টের অনুমোদন দেওয়া হয়নি। এই তালিকা থেকে বাদ পরেছে ‘ক্ষতিকর পর্ন’।
এছাড়াও ইচ্ছার বিরুদ্ধে যৌনতা জাতীয় কনটেন্ট কিংবা অপ্রাপ্তবয়স্কদের যৌনতা কোনোভাবেই পোস্ট করা যাবে না। এমনকি প্রোফাইল পিকচারে অথবা ব্যানার কিংবা বাইরে থেকে দৃশ্যমান এমন কোথাও এ ধরনের কনটেন্ট ব্যবহার করা যাবে না। আগে এসব কনটেন্ট এক্স হ্যান্ডলে পোস্ট ও দেখা যেত। কিন্তু তা ছিল সাবস্ক্রিপশনভিত্তিক।

নতুন নিয়মে সাবস্ক্রিপশন ছাড়াই অ্যাডাল্ট কনটেন্ট পোস্ট করা যাবে। এজন্য ইউজারদের অ্যাপের মিডিয়া সেটিংসে গিয়ে তা চালু করতে হবে। ১৮ বছরের কমবয়সী কিংবা যারা এক্স হ্যান্ডলে নিজেদের বয়স সংক্রান্ত তথ্য দেননি তারা এ ধরনের কনটেন্ট দেখতে পারবেন না। এর মাধ্যমে এক্সের নীতি মেটার ইনস্টাগ্রাম এবং ফেসবুকের পাশাপাশি টিকটক এবং ইউটিউবের মতো প্ল্যাটফর্মগুলোর বিপরীতে দাঁড়িয়েছে।

Continue Reading

Apps

অ্যান্ড্রয়েড ফোনে একাধিক সুবিধা যুক্ত করছে গুগল

Published

on

টেক এক্সপ্রেস ডেস্ক:
অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমে চলা স্মার্টফোনের জন্য নতুন ৫টি সুবিধা যুক্ত করতে যাচ্ছে গুগল। এর ফলে মেসেজেস অ্যাপে পাঠানো বার্তা সম্পাদনার পাশাপাশি ফোন থেকেই গাড়ি চালু, লক ও আনলক করা যাবে। আসুন দেখে নিই কী থাকছে নতুন ৫ সুবিধায়-

মেসেজেস অ্যাপে বার্তা সম্পাদনা
অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন থেকে খুদেবার্তা আদান-প্রদানের জন্য জনপ্রিয় মাধ্যম গুগলের মেসেজেস অ্যাপ। কিন্তু নানা কারণে বার্তা পাঠানোর ক্ষেত্রে বানান ভুল কিংবা গুরুত্বপূর্ণ তথ্য বাদ পড়ে যায়। এ সমস্যা সমাধানে মেসেজেস অ্যাপে পাঠানো বার্তা সম্পাদনা করার সুবিধা চালু করছে গুগল। এর ফলে বার্তা পাঠানোর ১৫ মিনিটের মধ্যে তা সম্পাদনা করা যাবে।

ইনস্ট্যান্ট হটস্পট
খুব শিগগিরই অ্যান্ড্রয়েড ফোনে যুক্ত হবে ইনস্ট্যান্ট হটস্পট সুবিধা। এর মাধ্যমে আঙুলের মাত্র একটি স্পর্শেই ফোনের হটস্পটে অ্যান্ড্রয়েড ট্যাবলেট ও ক্রোমবুক যুক্ত করা যাবে।

আপডেটেড গুগল হোম ফেভারিট উইজেট
হালনাগাদ গুগল হোম ফেভারিট উইজেটের মাধ্যমে অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা তাদের ফোনের স্ক্রিনে সহজেই গুগল হোম ফেভারিট উইজেট যুক্ত করতে পারবেন। এর ফলে গুগল হোম অ্যাপ চালু না করে ফোনের পর্দা থেকেই সহজে স্মার্ট হোম যন্ত্র নিয়ন্ত্রণ করা যাবে।

ডিজিটাল কার কি
ডিজিটাল কার কি সেবার পরিধি বাড়াচ্ছে গুগল। খুব শিগগিরই এ সুবিধাটি মার্সিডিজ বেঞ্জ ও পোলেস্টার গাড়িতে ব্যবহার করা যাবে। ডিজিটাল কার কি ব্যবহার করে অ্যান্ড্রয়েড ফোনের সাহায্যেই গাড়ি চালু, লক ও আনলক করা যাবে।

নতুন ইমোজি
অ্যান্ড্রয়েড ফোনের জিবোর্ডে আরো নতুন ইমোজি যোগ করছে গুগল। ইমোজি কিচেনে আরো নতুন কম্বিনেশন ব্যবহারের সুযোগ পাবেন ব্যবহারকারীরা।

Continue Reading

Social Media

হোয়াটসঅ্যাপে যুক্ত হল নতুন ফিচার

Published

on

whatsapp

টেক এক্সপ্রেস ডেস্ক:
ব্যক্তিগত যোগাযোগ কিংবা অফিসের ফাইল আদান-প্রদানে হোয়াটসঅ্যাপ এখন বেশ নির্ভরযোগ্য প্ল্যাটফর্ম হয়ে উঠেছে। এখন শুধু কল করা বা মেসেজ আদান-প্রদানেই সীমাবদ্ধ নেই এই অ্যাপ। মেসেজিং প্ল্যাটফর্মটি নিজেদের জনপ্রিয়তা ধরে রাখতে প্রতিনিয়ত নতুন নতুন ফিচার যুক্ত করছে, যা ব্যবহারকারীদের আরো বেশি আকর্ষণীয় করে তুলছে। সম্প্রতি বেশ কিছু নতুন ফিচার যুক্ত হয়েছে হোয়াটসঅ্যাপে। আরো কিছু সুবিধা যুক্ত হওয়ার অপেক্ষায়। সব মিলিয়ে ২০২৪ সালের প্রথমার্ধ বেশ আলোচনায় মেটার এই জনপ্রিয় অ্যাপ। তেমন কিছু ফিচার নিয়ে আলোচনা করা যাক-

মনের মতো সাজানো যাবে অ্যাকাউন্ট
নিজের ইচ্ছামতো আপনার হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট সাজানোর সুযোগ এসেছে। হোয়াটসঅ্যাপে সাধারণভাবে ডিফল্ট চ্যাট থিমের রং থাকে সবুজ, হোয়াটসঅ্যাপের লোগোর মতোই রঙের। তবে এই রং যাদের অপছন্দ তারা এবার থেকে চাইলে রং বদলাতে পারেন। আইফোন ব্যবহারকারীদের জন্য নতুন ফিচার্স নিয়ে আসছে মেটা। এরইমধ্যে এই হোয়াটসঅ্যাপের চ্যাট থিমের রং বদলানর জন্য আইওএস সংস্করণের পরীক্ষা পদ্ধতি শুরু হয়ে গেছে।

সব নম্বরে কল করার সুবিধা
হোয়াটসঅ্যাপে যোগ হচ্ছে ডায়ালার ফিচার। ফিচারটি চালু হলে ব্যবহারকারীরা বেশ কম খরচেই অপরিচিত নম্বরে সাধারণ কল করতে পারবেন। এমনকি নম্বর সেভ না করেই কল করা যাবে। আপাতত অ্যান্ড্রয়েড বিটা ভার্সন ২.২৪.৯.২৮-এ এই ফিচারটি পরীক্ষা করা হচ্ছে। খুব শিগগিরই সাধারণ ব্যবহারকারীদের অ্যাকাউন্টে পাওয়া যাবে এই ফিচার।

একই অ্যাপে দু’টি অ্যাকাউন্ট
অনেকে একই মোবাইলে দুইটি সিম ব্যবহার করেন কিন্তু হোয়াটসঅ্যাপে একটি নম্বর যুক্ত করেন। নিয়ম মেনে একই অ্যাপে দুইটি হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করার সুযোগ রয়েছে। এর জন্য প্রথমে হোয়াটসঅ্যাপের সেটিং মেনুতে যেতে হবে। এবার আপনার প্রোফাইল নামের পাশে ড্রপ ডাউন তিরটিতে ক্লিক করুন। এর পরে আরেকটি মোবাইল নম্বর যোগ করার অপশন আসবে, যেখানে যুক্ত করে নিন। এভাবে একটি হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করা যাবে।

স্ক্রিন শেয়ারিং ফিচার
মাইক্রোসফট টিমস, গুগল মিটের মতো ভিডিও কলিং প্ল্যাটফর্মগুলোর মতো স্ক্রিন শেয়ারিং ফিচার আনল হোয়াটসঅ্যাপ। ব্যবহারকারীরা কল চলাকালীন এক বা একাধিক ব্যক্তির সঙ্গে সহজেই লাইভ ভিউ শেয়ার করতে পারবেন। মোবাইল ফোনে কাউকে ভিডিও কল করলে ডিসপ্লের নিচে স্ক্রিন শেয়ারিং আইকন আসবে। সেই আইকনে ক্লিক করলেই একটা উইন্ডো পপআপ হবে। জানতে চাইবে, ইউজার স্ক্রিন শেয়ার করতে চান কি-না। এটা নিশ্চিত করলে শুরু হবে কাউন্টডাউন। এরপর স্টপ শেয়ারিং অপশনে ক্লিক করলেই স্ক্রিন শেয়ার বন্ধ হয়ে যাবে। শুধু স্মার্টফোনেই নয়, ডেস্কটপেও এই ফিচার ব্যবহার করা যাবে।

স্ট্যাটাসে দীর্ঘ অডিও বার্তা
হোয়াটসঅ্যাপে এর আগেও স্ট্যাটাসে অডিওবার্তা দেওয়া যেত। কিন্তু সেক্ষেত্রে সময়সীমা ছিল ৩০ সেকেন্ড। এবার থেকে স্ট্যাটাসে এক মিনিটের অডিও ক্লিপ দিতে পারবেন ব্যবহারকারীরা। সম্প্রতি ডব্লিউএবেটাইনফো একটি স্ক্রিনশট শেয়ার করেছে। সেটা অনুযায়ী স্ট্যাটাসে গিয়ে মাইক্রোফোন বাটনে ক্লিক করে অডিও রেকর্ড করতে পারবেন। সেখানেই অডিওটি স্ট্যাটাসে দেবার অপশন মিলবে।

ইন্টারনেট ছাড়াই মেসেজ
ইন্টারনেট ছাড়াই ব্যবহার করা যাবে হোয়াটসঅ্যাপ। যেখানে ইন্টারনেট নেই, সেখানেই হোয়াটসঅ্যাপের প্রক্সি সার্ভারকে কাজে লাগিয়ে আপনি মেসেজ করতে পারবেন। ইনস্ট্যান্ট মেসেজিং প্ল্যাটফর্মটি জানিয়েছে, যেখানে ইন্টারনেট পরিষেবা নেই সেখানে ভলান্টিয়ার এবং অর্গানাইজেশনের দ্বারা সেটআপ করা প্রক্সি সার্ভারের মাধ্যমেই কাজ করবে হোয়াটসঅ্যাপ।

চ্যাট ফিল্টার সুবিধা
হোয়াটসঅ্যাপে এখন পাওয়া যাবে চ্যাট ফিল্টারের সুবিধা। এর ফলে হোয়াটসঅ্যাপে যেকোনো মেসেজ খুঁজে পেতে সহজ হবে। হোয়াটসঅ্যাপের চ্যাট ফিল্টারে রয়েছে তিনটি বিভাগ। অল, গ্রুপ এবং আনরেড। অল-এর মধ্যে থাকবে সমস্ত মেসেজ। আনরেড-এখানে থাকবে আপনার না পড়া সমস্ত মেসেজ। আর গ্রুপ-এর ক্ষেত্রে হোয়াটসঅ্যাপের বিভিন্ন গ্রুপে আসা মেসেজগুলো থাকবে।

Continue Reading

Trending