Connect with us

Organization

Press release submission and distribution service Bangladesh

Published

on

Press Release Distribution Service In Bangladesh

Individuals depend on press release dispersion to enhance their advertising messages and reach. Be that as it may, independent ventures frequently have restricted assets and don’t have broad advertising or press release information.

That is the reason top free press release distribution service provider took a gander at simple to-utilize press release circulation administrations with solid notorieties, uncommon systems, and sensible costs.

That Service is a service that helps you brand your business by publishing your messages on popular newspapers or online portals. First of all, you need to submit your brand message to a PR Distribution Service provider.

Then they will send it to the different news sites, journalists, bloggers, social networks, and all the target audience. At this time, the press release is a very effective and common fact for branding any business.

So, there are hundreds of thousands of PR Distribution Services around the world. However, here we will talk about the 10 best press release distribution Services in 2023.

Press Release Distribution Services in 2023 >>  https://pearlit.net/pr/

Continue Reading
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Organization

বিটিআরসি’র নতুন ‘সাইবার সিকিউরিটি সেল’ গঠন

Published

on

টেক এক্সপ্রেস ডেস্ক:
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ সাইবার জগতের কনটেন্ট মনিটরিং ও ব্যবস্থাপনায় বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)-তে নতুন একটি ‘সাইবার সিকিউরিটি সেল’ গঠন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিটিআরসি চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর শিকদার। সোমবার বিকেলে বিটিআরসির প্রধান সম্মেলন কক্ষে কমিশনের চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর শিকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে অনলাইনে যুক্ত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ওই বিভাগের সচিব মো. আফজাল হোসেন। স্বাগত বক্তব্যে কমিশনের ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত রায় মৈত্র বলেন, প্রযুক্তির প্রসারের সঙ্গে সঙ্গে সাইবার জগতে অপ্রীতিকর ঘটনা বাড়ছে, এতে অনেকের সামাজিক এবং পারিবারিক ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পক্ষ থেকে কোনো রাষ্ট্রবিরোধী, ধর্মীয় উসকানিমূলক বা এসংক্রান্ত কোনো কনটেন্ট অপসারণ কিংবা বন্ধ করার অনুরোধ পাওয়া সাপেক্ষে বিটিআরসি কারিগরি ব্যবস্থা নিয়ে থাকে। অতএব, কেউ সামাজিক মাধ্যম দ্বারা ব্যক্তিগত বা পারিবারিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হলে সে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সহায়তা নিলে বিটিআরসি পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।

পরবর্তী সময়ে বিটিআরসির সিস্টেমস অ্যান্ড সার্ভিসেস বিভাগের মহাপরিচালক ব্রি. জে. মো. নাসিম পারভেজ জানান, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮-এর ৮ ধারা এর (১ ও ২) উপধারা অনুযায়ী আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ডিজিটাল সিকিউরিটি এজেন্সির মহাপরিচালকের মাধ্যমে ডিজিটাল মাধ্যম থেকে কনটেন্ট অপসারণ বা ব্লক করার জন্য বিটিআরসিকে অনুরোধ করবে। বিটিআরসি অবমাননাকর পোস্ট এবং আপত্তিকর কনটেন্ট সরাতে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোকে কনটেন্ট রিপোর্টিং সিস্টেমের (সিআরএস) মাধ্যমে অনলাইনে অনুরোধ জানায়। এরপর তারা তাদের গাইডলাইন অনুযায়ী কনটেন্ট অপাসারণ করে।

এছাড়া সরকারের অনুমোদনক্রমে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের আওতাধীন ডিপার্টমেন্ট অব টেলিকমে (ডট) স্থাপিত সাইবার থ্রেট ডিটেকশন অ্যান্ড রেসপন্স (সিটিডিআর) নামের কারিগরি সিস্টেমের মাধ্যমে আপত্তিকর ওয়েবসাইট, ডোমেইন এবং ব্লগ বন্ধ করার কার্যক্রম গ্রহণ করে থাকে। ইতিমধ্যে সিটিডিআরের মাধ্যমে ২২ হাজার পর্নোগ্রাফি ও জুয়ারি সাইটে প্রবেশ বন্ধ করা হয়েছে।

গত এক বছরে বিটিআরসি ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে ১৮ হাজার ৮৩৬টি লিংক অপসারণের অনুরোধ করে, যার মধ্যে ৪ হাজার ৮৮৮টি লিংক অপসারণ করা হয় এবং ইউটিউবে ৪৩১টি লিংক বন্ধ করার অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে ৬২টি লিংক বন্ধ করা হয়। এ ছাড়া সিটিডিআরের মাধ্যমে ১,০৬০টি ওয়েবসাইট এবং লিংক বন্ধ করা হয়।

Continue Reading

Organization

টেক এক্সপ্রেসের প্রথম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালনের কিছু ছবি

Published

on

গত ১৮ জুলাই ২০২১ ইং প্রযুক্তি বিষয়ক নিউজ পোর্টাল টেক এক্সপ্রেসের প্রথম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করা হয়। এসময় আলোচনা সভা, কেক কাটার আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে ধারণকৃত কিছু ছবি –

Flickr Album Link : https://www.flickr.com/photos/[email protected]/albums/72157719616728461

tech express 1st anniversary 18 July 2021 8

tech express 1st anniversary 18 July 2021 7 tech express 1st anniversary 18 July 2021 6 tech express 1st anniversary 18 July 2021 5 tech express 1st anniversary 18 July 2021 4 tech express 1st anniversary 18 July 2021 3 tech express 1st anniversary 18 July 2021 2 tech express 1st anniversary 18 July 2021 1 tech express 1st anniversary 18 July 2021 15

tech express 1st anniversary 18 July 2021 9 tech express 1st anniversary 18 July 2021 10 tech express 1st anniversary 18 July 2021 11 tech express 1st anniversary 18 July 2021 12 tech express 1st anniversary 18 July 2021 13 tech express 1st anniversary 18 July 2021 14

Continue Reading

Highlights

অনলাইনে প্রতারণামূলক উচ্চ সুদের ঋণদান কার্যক্রম অবিলম্বে বন্ধ করুন: টিক্যাব

Published

on

নিউজ ডেস্ক:
অনলাইনে অ্যাপস ব্যবহার করে র‌্যাপিড ক্যাশ, টাকাওয়ালা, স্বাধীন, ক্যাশ ক্যাশ, ক্যাশম্যান সহ বিভিন্ন প্রতারক চক্রের অবৈধ, উচ্চ সুদ হারের ঋণ বিতরণ কার্যক্রম অবিলম্বে বন্ধের দাবি জানিয়েছে টেলি কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টিক্যাব)।

শনিবার টেলি কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টিক্যাব) এর আহ্বায়ক মুর্শিদুল হক স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে দাবি জানায় সংগঠনটি।

বিজ্ঞপ্তিতে টিক্যাব জানায়, “অনলাইনে ঋণ বিতরণের এ কার্যক্রমে বাংলাদেশ ব্যাংকের কোন অনুমোদন নেই, অনুমতি নেই সরকারের অন্যকোন দপ্তরের। তারপরও দিনের পর দিন বিনা বাধায় প্রতারক চক্রগুলো গ্রাহকদের ঠকিয়ে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। প্ল্যাটফর্ম ভেদে ১ হাজার থেকে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত ঋণ দিচ্ছে তারা। ঋণ দেয়ার শর্ত স্বরূপ গ্রাহকের নাম, ঠিকানা, জন্ম তারিখ, এনআইডি কার্ড, ছবি, পেশাসহ বিভিন্ন ধরণের ব্যক্তিগত তথ্য নেয়া হলেও দেয়া হচ্ছে না ঋণদাতার কোন তথ্য। ২ হাজার টাকা ঋণ নিলে গ্রাহক পাচ্ছে ১৬৮৫ টাকা। নানা অজুহাতে কেটে নেয়া হচ্ছে ৩১৫ টাকা। বলা হচ্ছে অ্যাপ্লিকেশন ফি বাবদ ১২০ টাকা, ডাটা অ্যানালাইসিস ফি ১৮০ টাকা, মূল্য সংযোজন কর বা ভ্যাট ১৫ টাকা এবং সুদ বাবদ ৫ টাকা কেটে রাখা হয়। অর্থাৎ ২০০০ টাকা ঋণের বিপরীতে ৭ দিনের মধ্যে পরিশোধ করতে হচ্ছে ২০০৫ টাকা। তবে, পরিমাণ যতো বেশি হয় টাকা কেটে রাখার প্রবণতাও তত বেশি। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ঋণের টাকা পরিশোধ করতে না পারলে প্রতিদিন ১২০ টাকা হারে চক্রবৃদ্ধিতে বাড়ছে সুদ। বিকাশ, নগদসহ বিভিন্ন মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস ব্যবহার করে এ ঋণ কার্যক্রম চালাচ্ছে তারা। বেশির ভাগ প্লাটফর্মেরই কোন অফিসের ঠিকানা নেই, অনেকের থাকলেও সে সব ভুয়া। গ্রাহদের হাজারো অভিযোগ থাকলেও অবৈধ ভাবে ঋণদানের এসব কার্যক্রমের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে না। যা অত্যন্ত উদ্বেগজনক। আমরা অবিলম্বে এসকল প্রতারক চক্রের বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানাচ্ছি। পাশাপাশি গ্রাহদের সচেতন হওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।”

এ সময় টেলি কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টিক্যাব) এর পক্ষ থেকে গ্রাহক স্বার্থ সুরক্ষায় ৫ দফা দাবি পেশ করা হয়-
১) অবিলম্বে বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদনহীন অনলাইনে ঋণ দেয়ার এ ধরণের অবৈধ কার্যক্রম বন্ধ করতে হবে।
২) বিভিন্ন মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিসের মাধ্যমে তারা যাতে ঋণ কার্যক্রম পরিচালনা করতে না পারে সে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।
৩) এসব অ্যাপস ফেসবুক, ইউটিউব, গুগল এডসেন্স ব্যবহার করে নির্বিঘেœ তাদের প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)’র মাধ্যমে এ প্রচারণা ও তাদের অ্যাপস বন্ধ করতে হবে।
৪) প্রতারক চক্র যাতে হাতিয়ে নেয়া গ্রাহকদের ব্যক্তিগত তথ্যের অপপ্রয়োগ করতে না পারে সে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।
৫) উচ্চ সুদে গ্রাহকদের কাছ থেকে হাতিয়ে নেয়া বাড়তি অর্থ গ্রাহকদের ফেরত প্রদান করতে হবে এবং অবিলম্বে এই প্রতারক চক্রের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

Continue Reading

Trending