Tech Express
techexpress.com.bd

বড় আকারের কর পরিকল্পনা আপনছে বাইডেন প্রশাসন

নিউজ ডেস্ক:
অ্যাপল ও মাইক্রোসফটের নেতৃত্বে গত অর্থবছর যুক্তরাষ্ট্রের বাইরে প্রযুক্তি জায়ান্টদের মুনাফা হয়েছে ১০ হাজার কোটি ডলারেরও বেশি। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের নতুন কর নীতিমালায় এবার এ মুনাফার ওপর শুল্ক বসানো হতে পারে।

বিশালাকার অবকাঠামো ব্যয় সংকুলানে চলতি মাসে বহুজাতিক কোম্পানিগুলোর ওপর শুল্ক বৃদ্ধির ঘোষণা দিয়েছে বাইডেন প্রশাসন। এ পদক্ষেপের প্রধান লক্ষ্যবস্তু হচ্ছে বড় বড় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো, যারা তাদের আয়-সৃষ্টিকারী সম্পদ নিম্ন শুল্কের অফশোর এলাকাগুলোতে রাখছেন।

প্রযুক্তি শিল্পপ্রতিষ্ঠানগুলো তাদের বড় অংকের মুনাফা ওই দেশগুলোতে স্থানান্তরে পারঙ্গম, যেগুলো বেশ শুল্কবান্ধব এবং যেখানে কঠোর বিধিনিষেধ নেই। বড় আকারের কারখানা বা অন্যান্য সরঞ্জাম স্থানান্তরের চেয়ে সফটওয়্যার কোড, প্যাটেন্ট ও অন্যান্য ইন্টেলেকচুয়াল প্রপার্টি স্থানান্তর খুব সহজ।

২০১৭ সালে সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন কর কর্তন ও শ্রম আইন পাস করেন। তার উদ্দেশ্য ছিল অফশোর তত্পরতা কমানো। কিন্তু এতে তেমন কাজ হয়নি বলে মনে করেন ব্লুমবার্গ ইন্টেলিজেন্সের কর নীতিমালা বিশেষজ্ঞ অ্যান্ড্রু সিলভারম্যান। যেন আইনের ফাকফোকর গলিয়ে শুল্ক এড়াতে না পারে, এজন্য নতুন পরিকল্পনা নিয়ে হাজির হয়েছেন বাইডেন। যদি তা আইনে পরিণত হয়, তাহলে ২০১৭ সালের পাস হওয়া আইনটির অনেক ফাঁকফোকর বন্ধ করে দেবে বলে আশা করা হচ্ছে। বাইডেন প্রশাসনের এ পদক্ষেপের ফলে ওয়াশিংটনের সঙ্গে সিলিকন ভ্যালির সম্পর্ক আরো তিক্ত হবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। এরই মধ্যে অনলাইনে ভুল তথ্য সম্প্রচার, প্রতিযোগিতা নীতি লঙ্ঘন, গ্রাহকদের তথ্য ফাঁসসহ বিভিন্ন ইস্যুতে মার্কিন আইনপ্রণেতাদের জেরার মুখে নাভিশ্বাস উঠে যাচ্ছে প্রযুক্তি জায়ান্টগুলোর।

সিলভারম্যান বলেন, ট্রাম্প প্রশাসনের পাসকৃত আইনটি যা করতে পারেনি, বাইডেন প্রশাসনের প্রস্তাবিত আইনটি হয়তো তা কার্যকর করতে পারবে। এর মাধ্যমে বড় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোর ওপর বড় আকারের শুল্ক আরোপ করতে পারবে বাইডেন প্রশাসন। কিছু কোম্পানির ওপর তা অনেক প্রভাব ফেলবে।

যে কোম্পানিগুলো এ নীতিমালায় চ্যালেঞ্জের মুখে পড়বে বলে সিলভারম্যান মনে করেন, সেগুলো হচ্ছে অ্যাপল, মাইক্রোসফট, অ্যামাজন, ফেসবুক, ইন্টেল ও অ্যালফাবেট। এ ছয়টি প্রযুক্তি জায়ান্ট সর্বশেষ অর্থবছরে যুক্তরাষ্ট্রের বাইরে থেকে ১০ হাজার ডলারের মতো করপূর্ব মুনাফা করেছে। এ কোম্পানিগুলোর মধ্যে ইন্টেল গত বৃহস্পতিবার জানায়, চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকে তাদের আয় হয়েছে ৪০০ কোটি ডলার।

-ব্লুমবার্গ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.