Tech Express
techexpress.com.bd

আরও দেরিতে আসবে সত্যিকারের এআর চশমা

নিউজ ডেস্ক:
আরও পাঁচ থেকে দশ বছরের আগে বাজারে আসবে না “সত্যিকারের” অগমেন্টেড রিয়ালিটি চশমা – সম্প্রতি এমন তথ্যই জানালেন ফেইসবুকের প্রধান বিজ্ঞানী। তিনি আরও জানিয়েছেন, আগামী বছরেই প্রথম প্রজন্মের অগমেন্টেড রিয়ালিটি চশমা আনার পরিকল্পনা করেছে ফেইসবুক।

রয়টার্স এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ২০২১ সালে স্মার্ট চশমা আনার লক্ষ্যে বুধবার রে ব্যান নির্মাতা এসিলর লুক্সেটিকার সঙ্গে জোট বেঁধেছে ফেইসবুক। সামনে আরও উন্নত গ্লাস বানাতে সাহায্য করবে – এমন ডেটা সংগ্রহে ‘প্রজেক্ট আরিয়া’ নামে নতুন গবেষণা প্রকল্পও শুরু করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

ফেইসবুক রিয়ালিটি ল্যাবস রিসার্চের প্রধান মাইকেল অ্যাব্রাশ জানিয়েছেন, পুরোপুরি ‘ইন্টারঅ্যাকটিভ’ পর্দা ও অডিও এখনও চশমার মতো হালকা ওজনের উপাদানের মধ্যে দেওয়া সম্ভব নয়। তার হিসেবে, এরকম চশমার ওজন হবে ৭০ গ্রামের কাছাকাছি।

“এ ধরনের চশমা আনতে এখনও কয়েক বছর সময় লাগবে। এটি ২০২১ সালে আনা সম্ভব নয়, আমি ভবিষ্যতের কথা বলছি।” – বলেছেন অ্যাব্রাশ। ফেইসবুকের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, ২০২১ সালের স্মার্ট চশমায় কোনো পর্দা থাকবে না, এ ধরনের চশমা মোবাইল ফোন নির্ভর হবে, এবং মোবাইলের ভিত্তিতে চলবে। প্রযুক্তি শিল্পের অনেকেরই বিশ্বাস, একটা সময় মোবাইল ফোনের জায়গা নিয়ে নেবে এ ধরনের চশমা।

বর্তমানে স্মার্ট চশমা তৈরি নিয়ে কাজ করছে অ্যাপল, অ্যামাজন, গুগলের মতো প্রযুক্তি জায়ান্টরা। স্ন্যাপ ইনকর্পোরেট “স্পেক্টাকলস” নামের চশমা নিয়ে এসেছিল ২০১৬ সালে। গত বছর থেকে নিজেদের তৃতীয় প্রজন্মের ওই পণ্যে এআর উপাদান যোগ করা শুরু করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

অ্যাব্রাশ জানিয়েছেন, ব্যাটারি সক্ষমতা ও তাপ সংক্রান্ত সীমাবদ্ধতার কারণে স্মার্ট চশমাকে আপাতত ফোনের উপর নির্ভর করতে হবে। কিন্তু সত্যিকার এআর চশমা চলে আসার পর ডিভাইস “চশমার সহায়ক সরঞ্জামে পরিণত হবে, কারণ চশমার মাধ্যমে আপনি দেখবেন এবং বিশ্বের সঙ্গে কথাবার্তা বলবেন”।

Leave A Reply

Your email address will not be published.