Tech Express
techexpress.com.bd

২০০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সলিউশন নিয়ে কাজ করছে শাওমি

নিজস্ব প্রতিবেদক, টেক এক্সপ্রেস:
বর্তমানে বাজারের অন্যতম শক্তিশালী মাল্টিন্যাশনাল ব্র্যান্ডের নাম শাওমি। মূলত স্মার্টফোনের জন্য ব্র্যান্ডটির জনপ্রিয়তা হলেও, বিগত কয়েক বছরে সাশ্রয়ী মূল্যের উইয়ারেবল ডিভাইস, ল্যাপটপ, টিভি ইত্যাদি বাজারে এনে বেশ হইচই ফেলেছে চীনা সংস্থাটি।

এমনিতে শাওমির প্রায় প্রতিটি প্রোডাক্টের ফিচারই বেশ প্রিমিয়াম, তবে এখন প্রযুক্তির মোহজাল বিস্তারের খেলায় কোমর বেঁধে মাঠে নামছে সংস্থাটি।

কয়েক মাস আগে Mi 10 Ultra স্মার্টফোনে ১২০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজি ব্যবহার করে বিশ্ব বাজারে সাড়া ফেলেছিল শাওমি। এমনকি সুপারফাস্ট চার্জ টেকনোলজি আনার ক্ষেত্রে সংস্থাটি শীর্ষস্থানীয় ব্র্যান্ডের খেতাবও পেয়েছে। কিন্তু এতেও যে সংস্থাটি বিশেষ সন্তুষ্ট নয় -সাম্প্রতিক কিছু রিপোর্ট দেখে এমনটাই মনে হচ্ছে।

আসলে জল্পনা শুরু হয়েছে শাওমি এবার কাজ করতে চলেছে ২০০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজির ওপর। সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী বছরে বাজারে আসবে ২০০ ওয়াটেরও বেশি ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজিযুক্ত অ্যান্ড্রয়েড ফোন।

জনপ্রিয় টিপস্টার ‘ডিজিটাল চ্যাট সেকশন’ সম্প্রতি জানিয়েছেন, ২০২১ সাল নাগাদ বাজারে আসতে চলেছে ২০০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সলিউশন। ওয়েইবোতে ইঙ্গিত পোস্টে তিনি আরো বলেন, ২০২১ সালের শাওমির আপকামিং ফ্ল্যাগশিপ Mi MIX 4 স্মার্টফোনের সাথে অভিষেক হতে পারে ২০০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তির।

বলা হচ্ছে, ২০০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তিতে ৪,০০০ এমএএইচ ব্যাটারী ফুল চার্জ হতে সময় লাগবে মাত্র ১২ মিনিট। এদিকে ইতিমধ্যে আমরা ১২০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং ক্ষমতা দেখেছি Mi 10 Ultra শাওমির স্মার্টফোনে।

ফোনটির ৪,৫০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির বিশাল ব্যাটারি মাত্র ২১ মিনিটেই ফুল চার্জ করতে সক্ষম এই ১২০ ওয়াট চার্জার। তবে অনেক রিভিউয়ার খেয়াল করেছেন এতোটা দ্রুত চার্জিংয়ের ফলে ফোন অস্বাভাবিক রকম গরম হয়ে ওঠে।

সুতরাং ২০০ ওয়াট চার্জিং সলিউশনের সাথেও ফোনের ব্যাটারি লাইফ নিয়ে শঙ্কা থেকেই যায়। তাই অনেকে মনে করছেন, ফোনের চার্জিং স্পিডকে ৫০ ওয়াটের মধ্যে সীমাবদ্ধ রেখে চার্জিং স্পিড ও ব্যাটারি হেলথ এর একটি ব্যালেন্স করাটাই সবথেকে নিরাপদ অপশন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.