Tech Express
techexpress.com.bd

হ্যাকিংয়ে সাজা মিলল তিন বছর

নিজস্ব প্রতিবেদক:
বিটকয়েন কেলেঙ্কারীতে বেশ কয়েকটি হাই-প্রোফাইল টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাকিংয়ের দোষ স্বীকার করেছেন এক মার্কিন কিশোর। গ্রাহাম ইভান ক্লার্ক যখন বিট কয়েন স্ক্যাম সমন্বয়ের মাধ্যমে কিম কারদাশিয়ান ওয়েস্ট, কনিয়ে ওয়েস্ট, ইলন মাস্ক, বিল গেটস এবং বারাক ওবামাসহ সেলিব্রিটিদের প্রোফাইল হাইজ্যাক করেন তখন তার বয়স ছিল ১৭ বছর। এখন তার দায় স্বীকারমূলক আবেদনে তিনি তিন বছর কারাগারে কাটাবেন বলে সাব্যস্ত হয়েছে।

তবে ক্লার্ক এরইমধ্যে তিন বছরের সাজার ২২৯ দিন কারাগারে থেকেছেন। টাম্পা বে টাইমস জানিয়েছে, এখন ১৮ বছর বয়সী হলেও তাকে ‘কিশোর অপরাধী’ হিসাবে দণ্ডিত করা হয়েছে। তবে, তিনি বুট ক্যাম্পে কিছুটা সাজা ভোগ করতে পারেন। বুট ক্যাম্প হচ্ছে এমন ব্যবস্থা যেখানে সামরিক কায়দায় শৃঙ্খলা বজায় রাখা হয়। পাশাপাশি, আইন প্রয়োগকারী ব্যক্তিদের অনুমতি ও তদারকি ছাড়া ক্লার্ক কম্পিউটার ব্যবহার করতে পারবেন না।

যা ঘটেছিল-

গত বছরের ১৫ জুলাই হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে ক্লার্ক একটি ভুয়া প্রচারণা চালান যেখানে হাইজ্যাক করা সেলিব্রিটি অ্যাকাউন্টগুলো থেকে করোনা ভাইরাস-ত্রাণ প্রকল্পে বিটকয়েন অনুদান চাওয়া হয়। বিল গেটসের অ্যাকাউন্ট থেকে পাঠানো একটি টুইটটে সে সময় বলা হয়, “প্রত্যেকেই আমাকে ফেরত দিতে বলছে। আপনি বিট কয়েনে এক হাজার ডলার পাঠান, আমি আপনাকে দুই হাজার ডলার পাঠিয়ে দেব।”

ক্লার্ক এভাবে এক লাখ ১৭ হাজার ডলারের বেশি ক্রিপ্টোকারেন্সি সংগ্রহ করেন। ক্লার্কের আইনজীবী জানিয়েছেন, টাকাটি ক্ষতিগ্রস্থদের ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। অভিযোগ ছিল, ক্লার্ক টুইটার নেটওয়ার্কে অ্যাক্সেস পেতে একজন টুইটার কর্মীকে অনুকরণ করেছিলেন এবং আরও দু’জন হ্যাকারের সঙ্গে কাজ করেছিলেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.