Tech Express
techexpress.com.bd

ভিডিও পরীক্ষা করে কনটেন্ট নির্মাতাকে জানাবে ইউটিউব

নিজস্ব প্রতিবেদক:
অর্থ আয়ের পথকে আরও সহজ করে দিতে নতুন টুল নিয়ে আসছে গুগল মালিকানাধীন স্ট্রিমিং সেবা ইউটিউব। নতুন টুলটি নিজে থেকে ভিডিও পরীক্ষা করে কনটেন্ট নির্মাতাকে জানিয়ে দেবে সম্ভাব্য কোনো কপিরাইট দাবি উঠতে পারে কি না। এতে করে ভিডিও প্রকাশের আগেই বিজ্ঞাপন নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়ার হাত থেকে বাঁচার সুযোগ পাবেন নির্মাতারা। ইউটিউব নিজেদের নতুন টুলটির নাম দিয়েছে ‘চেকস’।

প্ল্যাটফর্মটির স্টুডিও ডেস্কটপের আপলোড প্রক্রিয়াতেই মিলবে নতুন টুলটি। এতোদিন কোনো কপিরাইট লঙ্ঘনের চিন্তা ছাড়াই ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করতে পারতেন নির্মাতারা। এ ধরনের কোনো সমস্যা হলে পরে তাদেরকে অবহিত করত ইউটিউব। “সাধারণত তিন মিনিটের মধ্যেই কপিরাইট পরীক্ষা সম্পন্ন হয়ে যাবে, অন্যদিকে মনেটাইজেশন পরীক্ষায় আরও কয়েক মিনিট বেশি সময় লাগবে। আনুমানিক কত সময় লাগবে আপনি তা পর্দায় দেখতে পারবেন।” – বলেছে ইউটিউব।

“আপনাকে আর ‘প্রাইভেট’ বা ‘আনলিস্টেড’ হিসেবে ভিডিও প্রকাশ করতে হবে না। পরীক্ষা সম্পন্ন হয়ে গেলে আপনি জেনে নিতে পারবেন আপনার ভিডিও মনেটাইজেশন বা প্রদর্শন উপযুক্ততার সম্ভাব্যতার ব্যাপারে। তবে, ভিডিও প্রকাশের পরও কোনো ধরনের সীমাবদ্ধতার মুখে পড়তে পারেন।” – বলেছে প্রতিষ্ঠানটি। পরীক্ষা চলাকালীনও ভিডিও প্রকাশ করতে পারবেন কনটেন্ট নির্মাতারা। তবে এ ক্ষেত্রে “মনে রাখতে হবে, কোনো সমস্যা হলে তা ভিডিওর প্রদর্শন সক্ষমতা বা মনেটাইজেশনের উপর প্রভাব ফেলবে।”

ইউটিউবের বরাত দিয়ে ডেইলি পাইওনিয়ার বলছে, যদি কোনো কপিরাইট দাবি আসে, সেক্ষেত্রে ‘সি ডিটেইলস’-এ ক্লিক করে সেটির ব্যাপারে জানতে পারবেন নির্মাতারা। বিজ্ঞাপন সংক্রান্ত সমস্যার জন্য পর্যালোচনার অনুরোধ জানানোর সুযোগও থাকছে। ইউটিউব অবশ্য আগাম সতর্কবার্তাও জানিয়ে রেখেছে। প্রকাশের পর সম্ভাব্য সমস্যা (যেমন ভবিষ্যতে ম্যানুয়েল দাবি, কপিরাইট স্ট্রাইক, ভিডিও সেটিংসে সম্পাদনার কারণে নিষেধাজ্ঞা) থেকে ভিডিওকে সুরক্ষিত করতে পারবে না চেকস টুল।

Leave A Reply

Your email address will not be published.