Tech Express - টেক এক্সপ্রেস
Google

ভারতের নিয়ন্ত্রক সংস্থার বিরুদ্ধে মামলা করতে যাচ্ছে গুগল

নিউজ ডেস্ক:
‘কম্পিটিশন কমিশন ইন্ডিয়া (সিসিআই)’-এর বিরুদ্ধে মামলা করতে যাচ্ছে গুগল। মার্কিন সার্চ জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে একআধিপত্য বিস্তার চেষ্টার অভিযোগ তদন্ত করছিলো ওই নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি। তদন্তের গোপন নথি ‘ফাঁস’ হয়ে যাওয়ায় সংস্থাটির বিরুদ্ধে পাল্টা মামলার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে গুগল।

রয়টার্স জানিয়েছে, গুগল সিসিআই-এর বিরুদ্ধে মামলা করার সিদ্ধান্ত জানিয়েছে বৃহস্পতিবার। গুগলের বিরুদ্ধে তদন্তে নেমে সিসিআই আবিষ্কার করে -ভারতের বাজারে অ্যান্ড্রয়েডনির্ভর শীর্ষ অবস্থানের অপব্যবহার করেছে গুগল, “ব্যাপক আর্থিক ক্ষমতা” কাজে লাগিয়ে বেআইনিভাবে ক্ষতি করেছে প্রতিযোগীদের। এই প্রসঙ্গে সেপ্টেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহে গুগল বলেছিলো, সিসিআইয়ের সঙ্গে কাজ নিয়ে আশাবাদী তারা।

“অ্যান্ড্রয়েড থেকে কীভাবে প্রতিযোগিতা না কমে বরং নতুন প্রতিযোগিতা এবং উদ্ভাবনের সূত্রপাত হয়েছে” সেটি দেখাতে চেয়েছিলো গুগল। কিন্তু বৃহস্পতিবার প্রতিষ্ঠানটি এক বিবৃতিতে সিসিআইয়ের বিরুদ্ধে আদালতের আশ্রয় নেওয়ার কথা বলেছে গুগল। রয়টার্স জানিয়েছে, দিল্লির হাই কোর্টে “আরও গোপন নথির বেআইনি প্রকাশ ঠেকাতে” সংস্থাটিকে আইনি চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছে গুগল। গুগল বলছে, তারা “গোপনীয়তা লঙ্ঘনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করছে”।

গুগলের মতে, সিসিআইয়ের কারণে গুগলের “নিজেকে রক্ষা করার ক্ষমতা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে এবং গুগলের অংশীদাররা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে”। “পুরো তদন্ত প্রক্রিয়ায় আমরা সাবধানতার সঙ্গে সহযোগিতা করেছি এবং গোপনীয়তা বজায় রেখেছি। যে সংস্থার সঙ্গে কাজ করছি, তাদের কাছ থেকেও একই রকমের গোপনীয়তা আশা করি আমরা।”–বিবৃতিতে বলেছে গুগল।

গুগলের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তাৎক্ষণিক কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি সিসিআই। ভারতের বাজারে গুগলের ভূমিকা নিয়ে নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি তদন্তের নির্দেশ দিয়েছিলো ২০১৯ সালে। তদন্তের আগেই অনুমান ছিল, বাজারে নিজেদের আধিপত্য কাজে লাগিয়ে গুগল সম্ভবত ডিভাইস নির্মাতাদের বিকল্প অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহারের ক্ষমতা কমিয়ে এনেছে এবং নির্মাতাদের ডিভাইসে নিজস্ব অ্যাপ প্রি-ইনস্টল করতে বাধ্য করেছে। ৭৫০ পাতার ওই তদন্ত প্রতিবেদনে উঠে এসেছে, গুগলের অ্যাপ প্রি-ইনস্টল করতে বাধ্য করা “ডিভাইস নির্মাতাদের উপর অন্যায় শর্ত চাপিয়ে দেওয়ার সমান”, যা ভারতের প্রতিযোগিতা আইন বিরোধী। ওই তদন্ত প্রতিবেদন জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করা হয়নি। তবে প্রতিবেদন পড়ে বার্তাসংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, বাজারে নিজেদের আধিপত্য টিকিয়ে রাখতে নিজস্ব ‘প্লে স্টোর’-কেও ব্যবহার করেছে গুগল।

webadmin

Follow us

Don't be shy, get in touch. We love meeting interesting people and making new friends.