Tech Express
techexpress.com.bd

তিন মার্কিন প্রযুক্তি কোম্পানির সম্মিলিত মুনাফা ৫ হাজার কোটি ডলার ছাড়িয়ে

নিউজ ডেস্ক:
চলতি বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে অ্যাপল, মাইক্রোসফট ও গুগলের সম্মিলিত মুনাফা ৫ হাজার কোটি ডলার ছাড়িয়েছে। তিন মার্কিন প্রযুক্তি জায়ান্টের আয়ের প্রতিবেদনের বরাতে এ তথ্য নিশ্চিত হয়েছে। খবর এপি’র।

বর্তমানে তিন প্রযুক্তি জায়ান্টের সম্মিলিত বাজারমূল্য ৬ দশমিক ৪ ট্রিলিয়ন ডলারে দাঁড়িয়েছে। ১৬ মাস আগে শুরু হওয়া করোনা মহামারীর প্রাথমিক দিনগুলোর তুলনায় তা প্রায় দ্বিগুণ বেড়েছে। বৈশ্বিক মহামারী সত্ত্বেও প্রযুক্তি জায়ান্টগুলোর ব্যবসা যে ফুলেফেঁপে উঠেছে এপ্রিল-জুন প্রান্তিকের আয়-ব্যয়ের উপাত্তে তা স্পষ্ট হয়ে উঠেছে।

প্রায় বছর দুয়েক ধরে মহামারী সত্ত্বেও নিজেদের পণ্যের আপগ্রেড চালিয়ে গেছে অ্যাপল। দ্বিতীয় প্রান্তিকের আয়ে তার প্রতিফলন ঘটেছে। এপ্রিল-জুন প্রান্তিকে ক্যালিফোর্নিয়ার কোপার্টিনোভিত্তিক কোম্পানিটি মুনাফা করেছে ২ হাজার ১৭০ কোটি ডলার, যা গত বছরের একই প্রান্তিকের চেয়ে ৯৩ শতাংশ বেশি। বিশ্লেষকদের পূর্বাভাসকে ছাপিয়ে গিয়ে প্রযুক্তি জায়ান্টটির মোট আয় ৩৬ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮ হাজার ১৪০ কোটি ডলার। গত শরতে বাজারে আসা আইফোন ১২ দিয়ে বাজার মাতিয়ে দিয়েছে অ্যাপল। গত কয়েক বছর ধরেই অ্যাপলের সর্বোচ্চ বিক্রীত গ্যাজেটের স্থান দখল করে রেখেছে আইফোন। আইফোন ১২-এর জনপ্রিয়তার পেছনে বড় ভূমিকা রেখেছে ফাইভজি নেটওয়ার্কে এর সক্ষমতা। গত প্রান্তিকে আইফোন থেকে অ্যাপলের আয় হয়েছে ৪ হাজার কোটি ডলার, যা গত বছরের একই প্রান্তিকের চেয়ে ৫০ শতাংশ বেশি। এছাড়া চলতি বছরে বাজারে আনা নতুন মডেলের আইম্যাক, আইপডও অ্যাপলের মোট আয়ে বড় ভূমিকা রেখেছে।

অবশ্য মঙ্গলবার কর্মীদের সঙ্গে এক কনফারেন্স কলে করোনার ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন অ্যাপল সিইও টিম কুক। ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের হানায় অ্যাপল তাদের কর্মীদের অফিসে ফেরার সময় সেপ্টেম্বর থেকে পিছিয়ে অক্টোবরে নিয়ে গিয়েছে। আগামী দিনগুলোতে চিপ স্বল্পতা মোকাবেলা ও উদীয়মান অর্থনীতিগুলোর ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রমের ওপর অনেকটা নির্ভর করছে অ্যাপলের মুনাফা প্রবৃদ্ধি। চলতি প্রান্তিকে আয়ে ১০ শতাংশ প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস অ্যাপলের।

গত মঙ্গলবার মাইক্রোসফট তাদের চতুর্থ প্রান্তিকের মুনাফা উপাত্ত প্রকাশ করেছে। সফটওয়্যার নির্মাতা জায়ান্টটির মুনাফা ৪৭ শতাংশ বেড়ে ১ হাজার ৬৫০ কোটি ডলারে দাঁড়িয়েছে। ওয়াল স্ট্রিটের পূর্বাভাসকে ছাড়িয়ে মাইক্রোসফটের শেয়ারপ্রতি নিট আয় হয়েছে ২ দশমিক ১৭ ডলার। গত বছরের একই সময়ের চেয়ে মাইক্রোসফটের মোট আয় ২১ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৬২০ কোটি ডলার। অ্যামাজনের সঙ্গে টেক্কা দিয়ে ক্লাউড সেবা এবং উইন্ডোজ সফটওয়্যার বিক্রির মাধ্যমে বড় অংকের আয় করল বিল গেটস ও পল অ্যালেন প্রতিষ্ঠিত কোম্পানিটি।

এদিকে গত বছরের চেয়ে চলতি বছরের এপ্রিল-জুন প্রান্তিকে গুগলের নিয়ন্ত্রক প্রতিষ্ঠান অ্যালফাবেটের আয় তিনগুণ বেড়েছে। শেয়ারপ্রতি অ্যালফাবেটের মুনাফা ২৭ দশমিক ২৬ ডলার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৮৫৩ কোটি ডলার। বিজ্ঞাপন থেকে গুগলের আয় ৬৯ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৪৪ কোটি ডলার। রিটেইলসহ ভ্রমণ ও বিনোদন খাত থেকে বড় অংকের বিজ্ঞাপন পেয়েছে সার্চ ইঞ্জিন জায়ান্টটি। ক্যালিফোর্নিয়ার মাউন্টেন ভিউভিত্তিক কোম্পানিটির মোট আয় হয়েছে ৬ হাজার ১৮৮ কোটি ডলার, যা গত বছরের চেয়ে বেড়েছে ৬২ শতাংশ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.