Tech Express
techexpress.com.bd

ডাবল এক্সপোজারসহ দারুণসব ক্যামেরা প্রযুক্তির স্মার্টফোন ‘ভিভো ভি২১’

নিউজ ডেস্ক:
বাংলাদেশে ভিভো ভি৭ দিয়ে ভি সিরিজের যাত্রা শুরু করেছিলো শীর্ষস্থানীয় গ্লোবাল স্মার্টফোন ব্র্যান্ড ভিভো। এরই মধ্যে সিরিজটির বিভিন্ন মডেলের ক্যামেরায় বিভিন্ন চমক দেখিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। এরই ধারাবাহিকতায় এবার দেশের বাজারে ভি সিরিজের সর্বশেষ স্মার্টফোন ভি২১ এনেছে ভিভো।

৩১ মে, সোমবার; বাংলাদেশের বাজারে স্মার্টফোনটি আনার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়েছে ভিভো। আজ ১ জুন, মঙ্গলবার; স্মার্টফোনটির প্রি-বুকিং শুরু হয়েছে যা চলবে আগামী ৫ জুন পর্যন্ত।

ভিভো ভি২১ এর অন্যতম আকর্ষণ এর বৈচিত্র্যময় ক্যামেরা প্রযুক্তি, এক্সটেন্ডেড র্যা ম এবং অত্যাধুনিক প্রসেসর।

ভিভো ভি২১ স্মার্টফোনের সেলফি ক্যামেরায় যোগ করা হয়েছে ৪৪ মেগাপিক্সেলের (এমপি) ফ্রন্ট অপটিক্যাল ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন (ওআইএস) ক্যামেরা প্রযুক্তি। এর আগে রিয়ার ক্যামেরায় ওআইএস প্রযুক্তি ব্যবহার করা হলেও ফ্রন্ট ক্যামেরায় ভিভোই প্রথম এই প্রযুক্তির ব্যবহার করলো। ওআইএস প্রযুক্তির কারণে ক্যামেরা লেন্স ১ দশমিক ৩ ডিগ্রি পর্যন্ত ঘুরতে পারে। ফলে সেলফি তুলতে গিয়ে হাত কেঁপে গেলেও লেন্স ঘুরে গিয়ে স্থির ও পরিষ্কার ছবি ধারণ করতে পারবে।

এছাড়া ৪৪ এমপি’ই দেশের বাজারে বর্তমানে সবচেয়ে বড় রেজ্যুলোশন ফ্রন্ট ক্যামেরা। শুধু তাই না, ভি২১ এ ব্যবহার করা হয়েছে ডুয়াল সেলফি স্পটলাইট. এআই নাইট পোর্ট্রইেট, আলট্রা সেন্সিং সেন্সর, হেড শিমিং ফর গ্রুপ ফটো প্রযুক্তি, ডাবল এক্সপোজার, ডুয়াল ভিউ ভিডিও এবং পিকচার ইন পিকচারের মতো চমৎকার সব ক্যামেরা প্রযুক্তি। অর্থাৎ ভিভো ভি২১ ফোনে প্রায় সব ধরনের ক্যামেরা প্রযুক্তির সর্বোত্তম ব্যবহার করেছে ভিভো। এই স্মার্টফোনটির পেছনে ৬৪ এমপি’র ওআইএস নাইট ক্যামেরার সাথে রয়েছে ৮ এমপি এবং ২ এমপি’র আরো দু’টি রিয়ার ক্যামেরা। বর্তমানে ভিভো’ই একমাত্র বহুজাতিক স্মার্টফোন প্রতিষ্ঠান যারা ফ্রন্ট এবং রিয়ার উভয় ক্যামেরাতেই ওআইএস প্রযুক্তি ব্যবহার করছে। আরও উল্লেখ্য যে , ভিভো ভি২১ বর্তমান বিশ্বে বাণিজ্যিকভাবে বিক্রয়কৃত ফ্রন্ট ও রিয়ার ক্যামেরায় একমাত্র ওআইএস সম্বলিত স্মার্টফোন।

ভি২১ এর আরো একটি অন্যতম বৈশিষ্ট্য হলো এর এক্সটেন্ডেড র্যা ম। স্মার্টফোনটির র্যা ম ৮ জিবি এবং রম ১২৮ জিবি। তবে, চাইলেই রম থেকে নিয়ে ৩ জিবি পর্যন্ত র্যা ম বাড়ানো যাবে। অর্থাৎ প্রয়োজনে ১১ জিবি পর্যন্ত র্যা মও দিবে ভিভো ভি২১।

এছাড়া প্রসেসরও স্মার্টফোনটির অন্যতম এক আকর্ষণ। মূলত প্রসেসরেই বহুলাংশে নির্ভর করে স্মার্টফোনের পারফরম্যান্স। তাই ভিভো ভি২১ এ ব্যবহার করা হয়েছে সবচেয়ে আধুনিক ও যুগোপযোগী প্রসেসর মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৮০০ ইউ । ৪০০০ মিলিএম্পিয়ার ব্যাটারির ভি২১’কে আরো শক্তিশালী করেছে এই প্রসেসরটি, যাতে রয়েছে ৩৩ ওয়াট ফ্ল্যাশ চার্জিং প্রযুক্তি।

বাংলাদেশে ভিভো ভি২১ পাওয়া যাবে ডাস্ক ব্লু এবং সানসেট ড্যাজেল রঙে। ভিভো ভি২১ এর মূল্য ৩২ হাজার ৯৯০ টাকা।

স্মার্টফোনটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভিভো বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মি. ডিউক বলেন, ‘আমাদের গ্রাহকরা স্মার্টফোনের কোন ফিচারগুলোর প্রতি সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব¡ দেয় আমরা তা নিয়ে প্রতিনিয়ত গবেষণা করি। এর উপরে ভিত্তি করেই আমরা ভি২১ এর লাইন আপ তৈরি করেছি। স্মার্টফোন হাতে নিয়ে অনেকেই সৃজনশীল ছবি তুলতে চান। কিন্তু সঠিক বা উন্নত প্রযুক্তির অভাবে হয়তো কখনো কখনো তা করা হয়ে উঠেনা। এসব অপূর্ণ ইচ্ছার বাস্তবায়নই করবে ভিভো ভি২১।’

Leave A Reply

Your email address will not be published.