Tech Express
techexpress.com.bd

‘অভিজ্ঞতা কেন্দ্রে’ পণ্য বিক্রি করবে মাইক্রোসফট

নিজস্ব প্রতিবেদক:
যুক্তরাজ্যের লন্ডন, যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক এবং অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে ‘অভিজ্ঞতা কেন্দ্র’ রয়েছে মাইক্রোসফটের। প্রতিষ্ঠানটি সম্প্রতি জানিয়েছে, জুলাইয়ের এক তারিখ ওই কেন্দ্রগুলো থেকে গ্রাহকের কাছে পণ্য বিক্রি শুরু করবে তারা।

এক্সপেরিয়েন্স সেন্টার বা অভিজ্ঞতা কেন্দ্র বলতে এমন স্থানকে বুঝায়, যেখানে সম্ভাব্য গ্রাহকের কাছে নিজ নিজ পণ্য তুলে ধরে কোনো প্রতিষ্ঠান। এরকম কেন্দ্রে পণ্য পরীক্ষা করে দেখার সুযোগ পান গ্রাহক এবং গ্রাহকের সমস্যা সমাধানে ওই প্রতিষ্ঠানের পণ্য কীভাবে কাজে আসতে পারে, সে বিষয়ে প্রতিষ্ঠানটি তাকে জানায়।

গত বছর কোভিড-১৯ মহামারীর মধ্যে মাইক্রোসফট নিজেদের খুচরো বিক্রয়কেন্দ্র বন্ধ করে দেয়। তারপর থেকেই মূলত ব্যবসায়িক গ্রাহকদের অভিজ্ঞতা কেন্দ্রের মাধ্যমে সেবা দিয়ে আসছে প্রতিষ্ঠানটি।

গত মাসে অ্যালফাবেট ইনকর্পোরেটেড মালিকানাধীন গুগল নিউ ইয়র্কে নিজেদের প্রথম বিক্রয়কেন্দ্র খোলার ঘোষণা দেয়। এই গ্রীষ্মেই খোলার কথা রয়েছে বিক্রয়কেন্দ্রটির।

কোভিড-১৯ মহামারী পাল্টে দিয়েছে মানুষের জীবনকে। বিশ্বের বহু মানুষ এখনও ঘর থেকে কর্মক্ষেত্রের কাজ করছেন, শেখার কাজটিও চলছে দূর থেকে। জোরেশোরে চলছে টিকা কর্মসূচী। অনেক স্থানে আবার টিকা নিয়ে চলছে হাহাকার। প্রযুক্তি পণ্যের চাহিদাও অনেক বেড়েছে এ সময়টিতে। তৈরি হয়েছে চিপ সংকট। অ্যাপল, গুগল, ফেইসবুকের মতো বড় বড় প্রতিষ্ঠানগুলোও দূর থেকে নিজ নিজ কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।

বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাস মহামারীর প্রকোপ একটু পড়তির দিকে থাকায় ধীরে ধীরে কার্যালয় খুলে দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে ফেইসবুক, অ্যাপল ও গুগল। তবে, অনেকেই এতো সহসা ফিরতে আগ্রহী নন। সে প্রমাণ মিলেছে টিম কুককে লেখা অ্যাপল কর্মীদের চিঠির মধ্য দিয়ে। তারা পরিষ্কার নীতিমালা প্রণয়নে অনুরোধ করেছেন কুককে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.